সিলেটে ইংল্যান্ড প্রবাসীর হোটেল কোয়ারেন্টিনেই বিয়ে

0
307

গত ১৮ ই মার্চ যুক্তরাজ্য থেকে দেশে আসেন মা ও ছেলে। নিয়মগতভাবে ৮ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। কিন্তু সেই ত্বর আর সইলনা যুবকের। বেশ ধুমধাম করেই বিয়ের কাজ সেরে ফেলেন কোয়ারেন্টাইনে থাকা হোটেলেই। ‘লা ভিস্তা হোটেলে’ হোটেলে ৫০ জন অতিথি নিয়ে ঘটা করেই বিয়ে করেন তিনি।

হোটেল সূত্র জানায়, যুক্তরাজ্য থেকে ১৮ মার্চ সিলেটে আসা যাত্রীদের মধ্যে ১১ জনকে লা ভিস্তা হোটেলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়। তাঁদের মধ্যে ওই মা–ছেলেও ছিলেন। তাঁরা হোটেলে উঠেই বিয়ের কেনাকাটাও করেন। তাঁরা হোটেল কর্তৃপক্ষকে জানান যে শুধু তাঁদের মধ্য থেকে এই অনুষ্ঠান হবে। বাইরে থেকে কেউ আসবে না। তবে ২০ মার্চ বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার সময় কনেপক্ষসহ আরও ৫০ জন অতিথি যোগ দেন। তবে কনে তাঁর বাড়িতেই ছিলেন। হোটেল থেকে লোক গিয়ে তাঁর স্বাক্ষর নিয়ে আসেন। ঘটনাটি প্রথম জানাজানি হয় বিয়েতে যোগ দেওয়া বাইরের অতিথিদের মাধ্যমে।

ওই তরুণের বাড়ি সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক উপজেলার জাঙ্গাইল এলাকায়। কনের বাড়ি সিলেট সদর উপজেলায়। হোটেলে কোয়ারেন্টিনে থাকার মধ্যেই বিয়ের অনুষ্ঠানের এই খবর গত সোমবার বিকেলে জানাজানি হয়। এ ঘটনায় আজ মঙ্গলবার হোটেল কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থাপককে প্রত্যাহার করেছেন। তদন্ত শুরু করেছে জেলা প্রশাসনও।

প্রবাসীদের কোয়ারেন্টিন নজরদারির দায়িত্বে থাকা জেলা প্রশাসনের একটি দল ঘটনাটি তদন্ত করছে। সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (ভারপ্রাপ্ত) আ ন ম বদরুদ্দোজা প্রথম আলোকে বলেছেন, ‘প্রবাসীদের সাত দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা। এর মধ্যে বিয়ের ঘটনাটি জেনে আমরা তদন্ত করছি।’

Facebook Comments Box