গৃহস্থালি কাজের জন্য স্ত্রীকে বেতন দিতে হবে চীনে

0
206

বিবাহবিচ্ছেদের এক মামলায় পাঁচ বছরের বিবাহিত জীবনে গৃহকর্মের মজুরী হিসাবে স্ত্রীকে ৫০ হাজার ইউয়ান (৭,৭০০ ডলার) ক্ষতিপূরণ দিতে স্বামীকে নির্দেশ দিয়েছে চীনের একটি আদালত।

আদালতের রেকর্ড অনুযায়ী, ওই ব্যক্তির ডাক নাম চেন, গত বছর স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের জন্য মামলা করেছিলেন তিনি। ২০১৫ সালে তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন। ওয়াং নামে ঐ নারী প্রথমে বিবাহবিচ্ছেদে আপত্তি করলেও পরে মেনে নেন, কিন্তু পাঁচ বছরের গৃহকর্ম এবং একমাত্র ছেলের লালন-পালনের জন্য স্বামীর কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ দাবি করেন।

মিজ ওয়াং আদালতে বলেন, তার স্বামী এসব কাজে তেমন কোনো সাহায্যই করেননি।আদালত ঐ নারীর দাবি মেনে নেন এবং প্রতি মাসে ২০০০ ইউয়ান খোরপোষ ছাড়াও গত পাঁচ বছরের গৃহকর্ম এবং সন্তানের দেখাশোনার মজুরী হিসাবে এককালীন ৫০,০০০ ইউয়ান ক্ষতিপূরণ দেওয়ার জন্য স্বামীকে নির্দেশ দেয়।

ঐ আদালতের বিচারক সোমবার সাংবাদিকদের বলেন, বিবাহ বিচেছদ হলে স্থাবর সম্পত্তি আধাআধি ভাগ হয়। কিন্তু, তিনি বলেন, “গৃহকর্মেরও একটি মূল্য রয়েছে।“

চীনে এ বছর নতুন এক পারিবারিক আইন জারীর পর আদালত এই রায় দিল। নতুন এই আইনে বলা হয়েছে, দাম্পত্য জীবনে যিনি সন্তান পালন বা বয়স্কদের দেখাশোনার জন্য অধিকতর দায়িত্ব পালন করবেন, বিবাহ বিচ্ছেদের সময় তিনি সেসব কাজের ক্ষতিপূরণ পাবেন। এমনকি বিবাহিত জীবনে স্বামীর ব্যবসা বা অন্য কোনো আয়ে তার ভূমিকা থাকলে তার ক্ষতিপূরণও তিনি পাবেন।

চীনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই মামলা নিয়ে তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি হয়। দেশটির মাইক্রোবগ্লিং প্ল্যাটফর্ম উইবোতে এ বিষয়টি ৫৭ কোটিবার দেখা হয়েছে।

গৃহকর্মের মূল্য নিয়ে বিতর্কের মধ্যে অনেকেই বলেছেন ক্ষতিপূরণে পরিমাণটি খুব কম হয়ে গেছে। কেই কেউ বলছেন, সংসারে পুরুষদের আরও বেশি ঘরের কাজ করা উচিত।

Facebook Comments Box