আয়ারল্যান্ড বিশ্বের ১৩ তম সুখী দেশ, ফিনল্যান্ড প্রথম

0
454

প্রতিবারের মত গতকাল জাতিসংঘের স্পন্সরড ‘ওয়ার্ল্ড হ্যাপিনেস রিপোর্ট’ প্রকাশিত হয়েছে। সেই রিপোর্টে আয়ারল্যান্ড এক ধাপ উন্নীত হয়ে বিশ্বের ১৩ তম সুখী দেশ নির্বাচিত হয়েছে।

ফিনল্যান্ড টানা চতুর্থবারের মত বিশ্বের সবচেয়ে সুখী রাষ্ট্র নির্বাচিত হয়েছে। ‘ওয়ার্ল্ড হ্যাপিনেস রিপোর্ট’ অনুযায়ী আইসল্যান্ড দ্বিতীয়, এর পরে রয়েছে ডেনমার্ক, সুইজারল্যান্ড এবং নেদারল্যান্ড। বাংলাদেশ রয়েছে ৬৮ তম স্থানে।

টপ টেন এর মধ্যে ৯ টি দেশই ইউরোপীয়। নিউজিল্যান্ডই একমাত্র ইউরোপের বাহিরের দেশ, যারা টপ টেনে জায়গা করে নিয়েছে। ইউকে ১৩ নাম্বার থেকে নেমে ১৭ তে এসে পৌঁছেছে। অন্যদিকে আমেরিকা ১৮ থেকে উন্নীত হয়ে ১৪ তে উঠে এসেছে।

সামাজিক সহায়তা, মানুষের ফ্রিডম, জিডিপি এবং দুর্নীতির পরিমাণ হিসেব করে এই রিপোর্ট করা হয়। এর সঙ্গে এবার যোগ হয়েছে করোনা পরিস্থিতি।

সবচেয়ে অসুখী দেশের তালিকায় রয়েছে জিম্বাবুয়ে, এর উপরেই রয়েছে তানজানিয়া, জর্ডান, ভারত ও কম্বোডিয়া।।

জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন সমাধান নেটওয়ার্ক (এসডিএসএন) ওয়ার্ল্ড হ্যাপিনেস রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। এটি টেকসই উন্নয়ন নেটওয়ার্কের সুখবিষয়ক নবম বার্ষিক প্রতিবেদন।

প্রথম ২০ টি সুখী দেশের তালিকাঃ 

১। ফিনল্যান্ড
২। আইসল্যান্ড
৩। ডেনমার্ক
৪। সুইজারল্যান্ড
৫। নেদারল্যান্ড
৬। সুইডেন
৭। জার্মানি
৮। নরওয়ে
৯। নিউজিল্যান্ড
১০। অস্ট্রিয়া
১১। ইসরাইল
১২। অস্ট্রেলিয়া
১৩। আয়ারল্যান্ড
১৪। আমেরিকা
১৫। কানাডা
১৬। চেক রিপাবলিক
১৭। বেলজিয়াম
১৮। ইংল্যান্ড
১৯। চীন
২০। ফ্রান্স

হেলসিঙ্কি, ফিনল্যান্ড

প্রতিবেদনটি তৈরিতে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিভিত্তিক বিশ্লেষক ও পরামর্শক প্রতিষ্ঠান গ্যালপ এবং যুক্তরাজ্যের লন্ডনভিত্তিক দাতব্য প্রতিষ্ঠান লয়েডস রেজিস্টার ফাউন্ডেশনের তথ্য ব্যবহার করা হয়েছে। এ ছাড়া করোনা মহামারিসংশ্লিষ্ট তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে ব্রিটিশ ইন্টারনেটভিত্তিক বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইউগভের আইসিএল-ইউগভ বিহেভিয়ার ট্র্যাকার থেকে।

এবারের প্রতিবেদন প্রস্তুতকারী দলে ছিলেন কানাডার ইউনিভার্সিটি অব ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার অধ্যাপক জন হেলিওয়েল। তিনি মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে বলেন, ‘(করোনা পরিস্থিতি সত্ত্বেও) আশ্চর্যজনকভাবে মানুষের ভালো থাকায় গড় হিসাবের দিক থেকে তেমন কোনো নিম্নমুখী প্রবণতা দেখা যায়নি। এর একটি কারণ হতে পারে, মানুষ করোনা মহামারিকে সবার ক্ষেত্রেই বাহ্যিক হুমকি হিসেবে বিবেচনা করছে। ফলে একধরনের সংহতির সৃষ্টি হয়েছে।’

Facebook Comments Box