অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা যুক্তরাজ্যে ৩০ এর কম বয়সীদের না নেওয়ার পরামর্শ

0
369

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিড-১৯ টিকার সঙ্গে রক্ত জমাট বাঁধার দূরান্বয়ী সম্পর্ক হলেও রয়েছে- বিশেষজ্ঞদের এমন বক্তব্য আসার পর যুক্তরাজ্যে ৩০ বছরের কম বয়সীদের এই টিকা না নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

বুধবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, রক্ত জমাট বাঁধার বিরল লক্ষণ দেখা দেওয়ার কারণে ৩০ বছরের কম বয়সীদের অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা না নিয়ে অন্য টিকা নিতে বলছে যুক্তরাজ্যের টিকাদান কর্তৃপক্ষ ।

এর আগে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইউরোপিয়ান মেডিসিন এজেন্সি (ইএমএ) জানায়, অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার সঙ্গে রক্ত জমাট বাঁধার বিরল লক্ষণের একটি সম্পর্ক রয়েছে।

বিবিসিসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে এই খবরটিও এসেছে গুরুত্বের সঙ্গে।

ব্রিটিশ-সুইডিশ কোম্পানি অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা কোভিশিল্ড বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রয়োগ চলছে। শুধু ইউরোপের দেশগুলোতেই আড়াই কোটি ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে।

তথ্য বিশ্লেষণ করে ইএমএ দেখেছে, মার্চ নাগাদ কোভিশিল্ড টিকা নেওয়া ৭৯ জনের মধ্যে রক্ত জমাট বাঁধার লক্ষণ দেখা গেছে। এর মধ্যে ১৯ জনের মৃত্যু ঘটেছে। আর এই ঘটনা নারীদের ক্ষেত্রে বেশি দেখা গেছে। আর মৃতদের তিনজনের বয়স ৩০ বছরের নিচে।

সংস্থাটি বলছে, টিকাই এই রক্ত জমাট বাঁধার কারণ কি না, তা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে এই টিকার সঙ্গে যে তার একটি সম্পর্ক রয়েছে, সেই ভাবনাটি আরও দৃঢ় হল।

তবে বিরল এই পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার মধ্যেও মহামারীর ঝুঁকি কমানোর ক্ষেত্রে টিকাটির গুরুত্ব এখনও কম নয় বলে বিশেষজ্ঞদের মত।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিশেষজ্ঞ প্যানেলকে উদ্ধৃত করে বিবিসি বলেছে, রক্ত জমাট বাঁধা সম্ভাব্য একটি পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হতে পারে, তবে তা এখনও নিশ্চিত হয়। আর যেখানে সারাবিশ্বে ২০ কোটি মানুষ ইতোমধ্যে এই টিকা নিয়েছে, সেখানে নগন্য সংখ্যকের বেলায়ি বিরল এই পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

Facebook Comments Box