২১শে বই মেলার বিশেষ আকর্ষণ: কবি ও লেখিকা পরিচিতি: লতা ওসমানী।

0
50


পৃথিবীর উত্তর গোলার্ধে অবস্থিত ক্ষুদ্র জনসংখ‌্যার দ্বীপ রাষ্ট্র আমাদের এই আয়ারল‌্যান্ড। এখানে ১০/১২ হাজার বাংলাদেশী মানুষের বসবাস। আগামী কাল ১৫ই মে রবিবার এই বাংলাদেশী কমিউনিটিতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বহুল প্রতিক্ষীত প্রানের মেলা “২১শে বই মেলা ২০২২”। বই মেলাটি অনুষ্ঠিত হবে Dublin City University তে, সকাল ১১টা থেকে শুরু করে সন্ধ‌্যা পর্যন্ত মেলা চলবে।

আনন্দের কথা হচ্ছে এবার বই মেলায় আমাদের আয়ারল‌্যান্ডে প্রবাসী বেশ কিছু কবি ও লেখক লেখিকাগন উপস্থিত থাকবেন। আশা করা যায় এটা আগত পাঠক পাঠিকা ও অতিথিদের জন‌্য হবে বাড়তি পাওয়া।

আয়ারল‌্যান্ডের প্রবাসী বাংলাদেশীদের কাছে তেমনি একজন প্রতিষ্ঠিত জনপ্রিয় ও পছন্দের কবি ও লেখিকা হলেন লতা ওসমানী, আমাদের লতা আপু।

লতা ওসমানী অর্থনীতিতে (PHD) উচ্চ শিক্ষা লাভ করে বহুবছর ধরে বিলেতের বিশ্ববিদ‌্যালয়ে অধ‌্যপনার কাজ করছেন। এ’ছাড়া তিনি কিছুদিন ঢাকাতেও ব্রাক-বিশ্ববিদ‌্যালয়ে এবং নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ‌্যালয়ে ভিজিটিং প্রফেসর হিসেবে অধ‌্যাপনা করেন।

অর্থনীতির উপর তার বেশ কিছু লেখা বিভিন্ন মাধ‌্যমে প্রকাশিত হলেও সাহিত‌্যের জগত তা্ঁকে বরাবরই আকর্ষণ করেছে বেশী।

ছোটবেলা থেকেই তাঁর লেখার সখ-সে ছড়া, কবিতা বা প্রবন্ধ যা কিছুই হোক না কেন। লেখার ভাষাটি বাংলা হোক কিংবা ইংরেজী।

বিশ্ববিদ‌্যালয়ে অর্থনীতিতে অধ‌্যাপনার কাজ করলেও সাহিত‌্যের জগত “পরানের গহিনে” বাস করা তাঁর একান্ত আপন ভুবন। তার প্রথম বই “এলোমেলো পাপড়িগুলো” প্রকাশিত হয়েছিল ২০১৭ সালে(ইংরেজী), স্থান পেয়েছিল বাংলা একাডেমির ২১শের বই মেলায়, অনন‌্যা প্রকাশনীর বই এর দোকানে। সেই সাফল‌্যই তাঁকে আন্তরিতভাবে আরও লিখতে উৎসাহিত এবং উদ্ধুদ্ধ করেছে।

বিগত কয়েক বছরে প্রকাশিত হয়েছে তাঁর আরও কিছু কবিতার বই। ২০১৮ সালের বাংলা একাডেমির ২১শের বই মেলায় তাঁর আরও দুটি কবিতার বই, একটি ইংরেজী, “সেন্স এ‌্যান্ড সিন্স” ও অপরটি বাংলা, “অকাব‌্যের ঝুলি” স্থান পেয়েছে। এরপর ২০২০এ ছাপা হলো “হেমন্তের বর্ণচ্ছটা” আর ২০২১ সালে প্রকাশিত হলো ইংরেজী কবিতার বই, “লোনলি বার্ড”।

কবিতা লেখার সময় বন্ধু-বান্ধবের কাছে লেখা চিঠি এবং এক-আধটু গদ‌্য রচনা থেকে প্রচুর প্রশংসা ও উৎসাহ পেয়েছেন তিনি; তাঁর লেখায় নাকি সাহিত‌্যের ছো্ঁয়া আছে- এমন মন্তব‌্য পেয়েছেন বেশ। সেখান থেকেই তাঁর যাত্রা শুরু হলো গদ‌্য রচনার পথে। তিনি আশা করেন তাঁর লেখা “ত্রিবেণী” (শিগ্রই প্রকাশিত হবে) আকৃষ্ট করবে গদ‌্যপ্রিয় পাঠক-পাঠিকা বৃন্দকে। এ’ছাড়া, খুব শিগগীরই ইউ পি এল থেকে প্রকাশিত হতে যাচ্ছে অর্থনীতির উপর লেখিকার আরও একটি বই, “ওমেন্স এনহ‌্যান্সড ক‌্যাপাবিলিটিস: ডাস মাইক্রোফাইনান্স ম‌্যাটার? “। সেই বইটিও পড়ার আমন্ত্রন জানিয়েছেন তিনি।

লেখক : মশিউর রহমান।
ডাবলিন,আয়ারল‌্যান্ড।

Facebook Comments Box