স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গে লঞ্চ কর্তৃপক্ষ কে জরিমানা , প্রতিবাদে বন্ধ চলাচল

0
284

 করোনা ভাইরাস মহামারির জন্য দুই মাসের বেশি সময় ধরে বন্ধ  থাকা নৌযান গতকাল চালু হয় । শর্ত ছিল  যাত্রীদের শারীরিক দূরত্ব রেখে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে নৌপথে লঞ্চ চলাচল করতে হবে । কিন্তু প্রথম দিনেই শর্ত ভঙ্গ করে পটুয়াখালী – ঢাকা নৌপথে চলাচল করা লঞ্চ ।গত রোববার প্রথম দিনেই পটুয়াখালী-ঢাকা নৌপথে লঞ্চে যাত্রীদের শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত না করায় একটি লঞ্চকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। 

 তিনটি দ্বিতল লঞ্ পটুয়াখালী থেকে  ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার জন্য লঞ্চঘাটে নোঙর করেছিল। বিকেলের মধ্যে ডেকে যাত্রী ভরে যায়।  কোনো শারীরিক দূরত্ব ছিল না । সন্ধ্যা ছয়টা থেকে লঞ্চগুলো ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল। বিকেলেই জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিযান পরিচালনা শুরু করেন সংশ্লিষ্টরা । লঞ্চে যাত্রীদের শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে পারেননি বিধায় সুন্দরবন-৮ লঞ্চের সুপারভাইজার আনোয়ার হোসেনকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অনাদায়ে দুই মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

জরিমানার টাকা পরিশোধ না করায় সুপারভাইজার আনোয়ারকে থানায় নিয়ে গেলে লঞ্চ কর্তৃপক্ষ পটুয়াখালী লঞ্চঘাটের তিনটি লঞ্চই ঢাকা ছেড়ে যেতে দ্বিমত পোষণ  করে। ফলে যাত্রী নিয়ে লঞ্চগুলো পটুয়াখালী ঘাটে অবস্থান করছে। তাদের সহকর্মীকে আটক করায় তারা লঞ্চ না চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানায় লঞ্চ কর্তৃপক্ষ।

ভ্রাম্যমাণ আদালত জরিমানা করায় পটুয়াখালী লঞ্চঘাটে থাকা লঞ্চগুলো ঢাকামুখী যাত্রা বন্ধ করে দেয়ায়  শত শত যাত্রী চরম দুর্ভোগে পড়েছেন।

দুই মাসের বেশি সময় ধরে বন্ধ থাকার পর গতকাল  চালু হয় নৌযান। তবে করোনার কারণে সরকারের দেওয়া নিয়ম অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে ও শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করে লঞ্চ চলাচল করার নির্দেশনা দিয়েছিল কর্তৃপক্ষ।

Facebook Comments Box