র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান হারালেন সাকিব

0
136

সপ্তাহ তিনেক আগেও টি–টোয়েন্টি অলরাউন্ডার র‍্যাঙ্কিংয়ে দুইয়ে ছিলেন সাকিব আল হাসান। শীর্ষে থাকা আফগানিস্তানের মোহাম্মদ নবী এশিয়া কাপে ব্যর্থ হওয়ায় এক নম্বরে উঠে গিয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। দুই সপ্তাহ পর নবীর কাছেই জায়গা হারালেন সাকিব। টি–টোয়েন্টিতে দুইয়ে নেমে গেলেও ওয়ানডেতে এখনো শীর্ষ স্থান ধরে রেখেছেন তিনি।

আইসিসির হালনাগাদ করা র‍্যাঙ্কিংয়ে টি–টোয়েন্টিতে সাকিবের রেটিং ২৪৮ থেকে কমে ২৪৩–এ নেমেছে। এক নম্বরে থাকা নবীর রেটিং ২৪৬। এশিয়া কাপের পর দুজনের কেউই অবশ্য জাতীয় দলের হয়ে খেলেননি। দুজনই ব্যস্ত ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল)। যেখানে টানা দুই ম্যাচে ফিফটি পেয়েছেন সাকিব, নবী পেয়েছেন টানা দুই ম্যাচে ৩ উইকেট।

অলরাউন্ডার র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ চারে উঠে এসেছে ভারতের হার্দিক পান্ডিয়া। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শেষ দুই ম্যাচে ৯ ও অপরাজিত ২৫ রানের ইনিংস খেলা পান্ডিয়ার রেটিং পয়েন্ট ১৮৪। সমান রেটিং শ্রীলঙ্কার ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গারও। দুজনই যৌথভাবে চতুর্থ স্থানে আছেন। ২১১ রেটিং নিয়ে তিন নম্বরে ইংল্যান্ডের মঈন আলী।

এদিকে ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে এক নম্বর স্থান ধরে রেখেছেন পাকিস্তানের মোহাম্মদ রিজওয়ান। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ তিন ম্যাচে অপরাজিত ৮৮, ৮ ও ৮৮ রানের ইনিংস খেলে ৮৬১ রেটিং তাঁর। ৮০১ রেটিং নিয়ে দুইয়ে ভারতের সূর্যকুমার যাদব।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তৃতীয় টি–টোয়েন্টিতে ৩৬ বলে ৬৯ রানের ম্যাচজয়ী ইনিংস খেলেন তিনি। পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম আছেন সূর্যকুমারের ঠিক পরেই। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি–টোয়েন্টিতে সেঞ্চুরি করে রেটিং নিয়ে গেছেন ৭৯৯–এ।

বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ তিনে পরিবর্তন হয়নি। আগের মতোই এক নম্বরে অস্ট্রেলিয়ার জশ হ্যাজলউড, দুই এবং তিনে আছেন দক্ষিণ আফ্রিকার তাব্রেইজ শামসি ও ইংল্যান্ডের আদিল রশিদ। বোলিংয়ে সবচেয়ে বড় উন্নতি হয়েছে পাকিস্তানের হারিস রউফের। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩ ম্যাচে ৫ উইকেট নেওয়া ফাস্ট বোলার সাত ধাপ এগিয়ে উঠে এসেছেন ১৪ নম্বরে।

সাকিব আল হাসান

Facebook Comments Box