বিদ্যুৎ বিলের বিলম্ব ফি মওকুফ জুন পর্যন্ত

0
331
ছবিসুত্রঃ ইন্টারনেট , আইরিশ বাংলা টাইমস

 জুন পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিলের বিলম্ব ফি মওকুফ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগ। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ঝুঁকি এড়ানোর  জন্যই এই সিধান্ত । 

আজ রোববার (৩১ মে) সচিবালয়ে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী ও জ্বালানি নসরুল হামিদ বিপু সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। 

তিনি বলেন, এই সময় ঝুঁকি নিয়ে তাড়াতাড়ি করে বিল দিতে হবে না। আমরা জুন মাস পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিলের বিলম্ব মাশুল মওকুফের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বিদ্যুৎ বিল নিয়ে নানা ভোগান্তির কথা আমাদের কানেও আসছে । কারও কোনও বাড়তি বিল করা হলে তা পরবর্তীতে সমন্বয় করা হবে।

বিভিন্ন ব্যাংক ও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করে থাকেন বিদ্যুতের আবাসিক গ্রাহকরা। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ভয়ে গ্রাহকদের পক্ষে বিল পরিশোধ করা সম্ভব হবে না। তাই  গত মার্চে মন্ত্রণালয় এ সম্পর্কে আদেশ জারি করে ।  এই আদেশে  ফেব্রুয়ারি, মার্চ ও এপ্রিল মাসের বিল কোনো রকম বিলম্ব মাশুল ছাড়া মে মাসে জমা নেওয়ার জন্য বিইআরসিকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে  বলা হয়।

প্রসঙ্গত, এর আগে মে মাস পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার বিলম্ব মাশুল মওকুফ করার জন্য  গত ২২ মার্চ ওই আদেশ দেওয়া হয়েছিল। য

এ নিয়ে  বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) কাছে  একটি চিঠি পাঠানো হয়।

জ্বালানি বিভাগের উপসচিব আকরামুজ্জামান স্বাক্ষরিত সেই চিঠিতে বলা হয়, আবাসিক গ্যাস বিল নির্ধারিত সময় জমা দিতে বিপুল পরিমাণ গ্রাহক একসঙ্গে ব্যাংকে গিয়ে জমা হয়। এভাবে অনেক মানুষ একসঙ্গে ব্যাংকে গিয়ে বিল দিতে গেলে করোনাভাইরাস  সংক্রমণ হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে সরকার ‘গ্যাস বিপনন নিয়মাবলি (গৃহস্থালি) ২০১৪’ শিথিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আবাসিক গ্রাহকেরা কোনো রকম বিলম্ব মাশুল বা সার চার্জ ছাড়াই ফেব্রুয়ারি, মার্চ, এপ্রিল ও মে মাসের গ্যাস বিল আগামী জুন মাসের সুবিধাজনক সময় জমা দিতে পারবেন ।

Facebook Comments Box