বাংলাদেশী কমিউনিটি আয়ারল্যান্ডের ২০২২ সালের উল্লেখযোগ্য ঘটনাবলি

0
213

আয়ারল্যান্ডে সরব হয়ে উঠেছে বাংলাদেশি কমিউনিটি। অনুষ্ঠান-আমেজে, মেলায়-মেলবন্ধনে, খেলায়-নির্বাচনে; বাংলাদেশি কমিউনিটি যেন জানান দিচ্ছে, আমরা আছি। ২০২২ সাল যেন হয়ে উঠেছে মিলনমেলার বছর।

দীর্ঘ করনাকালিন সময়ে সবাই ছিল ঘরবন্ধি। ছিলনা কারো সাথে কারো শারীরিক সাক্ষাত। করনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবার পরপরই সবাই সবার সাথে সাক্ষাতের নিমিত্তে ব্যাকুল হয়ে উঠে। বিভিন্ন অনুষ্ঠান উৎসবের মাধ্যমে একই সাথে অনেকের সাথে মিলিত হবার সুযোগ করে দেয়।

২০২২ সালে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল বেশ কিছু কমিউনিটি ভিত্তিক অনুষ্ঠান। এতে বাংলাদেশি কমিউনিটির অস্তিত্বকে জানান দেয়ার জন্য যথেষ্ট ছিল।

তারিখ ক্রমানুসারে নিম্নোল্লোখিত উল্লেখযোগ্য আয়োজন আয়োজিত হয়েছিল বাংলাদেশী বিভিন্ন কমিউনিটি সংগঠনের উদ্যোগেঃ 

> ১ম ফেব্রুয়ারি ২০২২ তে অনুষ্ঠিত হয় আয়ারল্যান্ডের সমগ্র নারীদের নিয়ে অনুষ্ঠান। শুধুমাত্র মহিলাদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত এই নারীদের মিলনমেলায় মিলিত হয় আয়ারল্যান্ডের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত নারীরা। নারীদের নিয়ে ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগ সবার প্রশংশা কুড়াতে সক্ষম হয়।

> আইরিশ বাংলা টাইমসের প্রথম মুদ্রিত ম্যাগাজিনের প্রকাশনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয় মার্চে। আয়ারল্যান্ডের বিশিষ্ট গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয় আড়ম্বরপূর্ণ এই অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয় মার্চ এর ১৫ তারিখে।

> ২৬শে মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আয়ারল্যান্ডে প্রথমবারের মত প্রদর্শন করা হয় বাংলাদেশী জাতীয় পতাকার আদলে আলোকসজ্জা। লিমেরিক সিটি কাউন্সিলের পক্ষ থেকে আয়োজিত এই আলোকসজ্জা প্রদর্শন করা হয় ২৬শে মার্চ সন্ধ্যায়। আয়ারল্যান্ডের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বাংলাদেশীরা ঐ আলোকসজ্জায় অংশগ্রহণ করে স্বাধীনতার প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করেন।

> ২৭শে এপ্রিল ২০২২, ২৬ রমজানের দিন সোর্ডস মসজিদের নির্মাণ কাজের জন্য আইরিশ বাংলা টাইমস এক তহবিল সংগ্রহের আয়োজন করে। ৬২,০০০ ইউরো উক্ত দিনে সংগ্রহীত হয়েছিল। রমজানে আইরিশ বাংলা টাইমসের নিয়মিত অনুষ্ঠান বরকতময় মাহে রমজান অনুষ্ঠানে তহবিল সংগ্রহের ব্যবস্থা করা হয়।

> ২রা মে তে ছিল ২০২২ এর ঈদুল ফিতর। উক্ত দিনে লিমেরিক এবং গলওয়ে আয়োজন করে ঈদ মিলনমেলায়। ঈদের দিন সকলে মিলে পালন করেন ঈদুল ফিতরের অনুষ্ঠান। এতে সবাই একসাথে মিলিত ও ঈদের আনন্দকে ভাগাভাগি করার সৌভাগ্য অর্জন করেন।

> তারই ঠিক দুই সপ্তাহ পরে ১৫ই মে তে অনুষ্ঠিত হল প্রাণের মেলা বই মেলা। আয়ারল্যান্ডে ২য় বারের মত অনুষ্ঠিত এই মেলা ছিল প্রাণ চঞ্চল এবং উৎসবমুখর। লেখক, পাঠক, কবি সাহিত্যকের পদচারনায় মুখর হয়ে উঠেছিল বইমেলার স্থান ডাবলিন সিটি ইউনিভার্সিটির প্রাঙ্গণ।

> বইমেলার আমেজ কাটতে না কাটতেই অনুষ্ঠিত হল সমগ্র আয়ারল্যান্ডবাসীর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশী মিলনমেলা এবং ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান। ডাবলিনের টালা তে অনুষ্ঠিত এই মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয় ২১শে মে এবং সাড়াজাগানো ঐ মিলনমেলায় সাড়া দিয়েছিল সমগ্র আয়ারল্যান্ডবাসী।

> ২১শে জুন ডাবলিনের রেড কাউ হোটেলে বাংলাদেশ স্পোর্টস এ্যাসোসিয়েশন অব আয়ারল্যান্ড (BSAI) এর এক যুগ পূর্তি উপলক্ষে এর ফাউন্ডার মেম্বারদের সন্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে BSAI এর সকল কাউন্সিলরদের বিশেষ ধন্যবাদ জানানো হয় এবং নব নির্বাচিত উপদেষ্টা মণ্ডলীদের সংবর্ধনা দেয়া হয়।

> ২৭ জুন ২০২২ তে সংবর্ধনা দেয়া হয় ‘’গলওয়ে বাংলাদেশ কমিউনিটি’র নব নির্বাচিত সদস্যদের। আড়ম্বরপূর্ণ এই অনুষ্ঠানে আয়ারল্যান্ডের বিভিন্ন জায়গা থেকে বাংলাদেশী কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। ২৯শে মে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

> ১৯শে জুলাই অনুষ্ঠিত হয় BSAI আয়োজিত অনূর্ধ্ব ১৮ ফুটবল টুর্নামেন্ট। উক্ত টুর্নামেন্টে লিমেরিক চ্যাম্পিয়ন হয়। টুর্নামেন্টটি গলওয়েতে অনুষ্ঠিত হয়।

> ২৩শে আগস্ট অনুষ্ঠিত হয় BSAI আয়োজিত ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। ডাবলিনের টয়ম্ন পার্কে অনুষ্ঠিত এই টুর্নামেন্টে ডাবলিন চ্যাম্পিয়ন হয়।

> ৬ই সেপ্টেম্বর ‘’কিলডেয়ার বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন আয়ারল্যান্ড’’ এর নব কমিটি কমিটি গঠনের প্রাথমিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

> ১১ই সেপ্টেম্বর ২০২২ তে অনুষ্ঠিত হয় বহুল প্রতীক্ষিত ABAI নির্বাচন। একই মাসে ২৭শে সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ কমিউনিটি ডাবলিনের নবগঠিত কার্যকরী কমিটি ঘোষণা করে।

> ১৫ই সেপ্টেম্বর এক সভার মাধ্যমে নতুন উপদেষ্টা পরিষদের কার্যকরী কমিটি ঘোষণা করে ‘’বাংলাদেশী কমিউনিটি ইন ডোনেগাল’’।

> ২৭শে সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হয় BSAI আয়োজিত ফুটবল টুর্নামেন্ট। টুর্নামেন্টটি অনুষ্ঠিত হয় ডাবলিনের ব্যালিমুন ফুটবল ক্লাবে।

> ১৬ই অক্টোবর বাংলাদেশ কমিউনিটি অফ ডাবলিনের উদ্যোগে আয়োজন করা হয় সিরাত মাহফিল ও ফান্ড রেইজ অনুষ্ঠানের।

> ১৮ই অক্টোবর শপথ প্রদান ও সংবর্ধনা প্রদান করা হয় অল বাংলাদেশী এসোসিয়েশন অব আয়ারল্যান্ডের নবনির্বাচিত সদস্যদেরকে। নির্বাচন কমিশন কতৃক আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে আয়ারল্যান্ডের বাংলাদেশী কমিউনিটির ব্যক্তিবর্গগন।

> ৩রা নভেম্বর কর্কে অনুষ্ঠিত হয়েছে পুরুষ ডাবল ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট।

> ৯ই নভেম্বর ডাবলিনবাসীর পক্ষ থেকে আবাই এর নব নির্বাচিত কমিটিকে সংবর্ধনা প্রদান করেন ডাবলিন বাংলাদেশী কমিউনিটির কমিটি।

> ১৩ই নভেম্বর লিমেরিকে অনুষ্ঠিত হয় নতুন প্রজন্মের রান্নামেলা ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের প্রদর্শনী অনুষ্ঠান। এতে টিনএইজ শিশুকিশোররা তাদের হাতে তৈরি খাবার প্রদর্শন করে ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীগণ তাদের ব্যবসা প্রদর্শন করতে সক্ষম হন।

> ১৯শে নভেম্বর ইউনিভার্সিটি কলেজ ডাবলিন (UCD) এর একটি সংস্থা POI এর সৌজন্যে বাংলাদেশী জনগণকে নিয়ে ডঃ আরমান রহমানের উদ্যোগে ক্যান্সার বিষয়ক একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

> আত্মপ্রকাশ করে ‘’আইরিশ বাংলা এ্যাসোসিয়েশন অব ডোনেগাল’’ এর। ২২ নভেম্বর এক জরুরি সভার মাধ্যমে এই ঘোষণা দেয়া হয়।

> ‘’হৃদয়ে রবীন্দ্রনাথ, চেতনায় নজরুল’’ অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয় ২৭শে নভেম্বর ডাবলিনের আলসা স্পোর্টস সেন্টারে। অনুষ্ঠানটির আয়োজন করেন ‘’আমরা ক জন’’।

> ২৯শে নভেম্বর ডাবলিনের তেরেনিউর ব্যাডমিন্টন সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয় বাংলাদেশী ভাইদের জন্য ওপেন ডাবলস ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট ২০২২। টুর্নামেন্টটির আয়োজন করে পিস মিশন আয়ারল্যান্ড।

> ১১ই ডিসেম্বর লিমেরিকে অনুষ্ঠিত হয় আন্তর্জাতিক শীতকালীন কালচারাল অনুষ্ঠান। লিমেরিক সিটি এবং কাউন্টি কাউন্সিল এর উদ্যোগে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশও অংশগ্রহণ করে। উক্ত অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ তার দেশীয় ঐতিহ্য তুলে ধরে প্রেজেন্টেশন ও দেশীয় ঐতিহ্যগত খাবার ও কুটির শিল্প প্রদর্শন করে বিদেশিদের কাছে।

> ১১ই ডিসেম্বর ডাবলিনের নবগঠিত কমিটি ‘’বাংলাদেশ কমিউনিটি ডাবলিন’’ এর অভিষেক ও বিজয় দিবস অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে আয়ারল্যান্ডের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয় ইউনিভার্সিটি কলেজ ডাবলিনে।

> বিজয় দিবস উপলক্ষে ১৯শে ডিসেম্বর অল বাংলাদেশী এসোসিয়েশন অব আয়ারল্যান্ড (আবাই) এর উদ্যোগে ডাবলিনের আলসা স্পোর্টস সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়েছে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে ডকুমেন্টারি ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক আলোচনা উঠে আসে উক্ত অনুষ্ঠানটিতে।

> এছাড়াও ২৫শে ডিসেম্বর বিভিন্ন জায়গায় আয়োজন করা হয় ইসলামিক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। তন্মদ্ধে প্রতিবারের মত ক্লোনডালকিন মসজিদ (IMCC) আয়োজন করে ১৯ তম তাফসিরুল কুরআন মাহফিল, বাংলাদেশ কমিউনিটি গলওয়ে আয়োজন করে ইসলামিক আলোচনা ও দোয়া মাহফিল, আইরিশ বাংলা এসোসিয়েশন অব ডোনেগাল আয়োজন করে ১ম বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল, বাংলাদেশী কমিউনিটি ইন ডোনেগাল আয়োজন করে বার্ষিক চতুর্থ মিলন মেলা ও বিজয় দিবস উদাপন।

> সর্বশেষ ২৬শে ডিসেম্বর বাংলাদেশ কমিউনিটি ডাবলিনের উদ্যোগে আয়োজন করা হয় ওয়াজ ও দোয়ার মাহফিলের।

উপরোক্ত অনুষ্ঠান ও আয়োজন ব্যাতিত আরও অনুষ্ঠান হয়ত হয়েছে ব্যাক্তিগত ও কমিউনিটির উদ্যোগে। এভাবে বাংলাদেশী কমিউনিটি এগিয়ে যাক হাতে হাত রেখে। তৈরি হোক পারস্পরিক মেলবন্ধন। সরব থাকুক বাংলাদেশী কমিউনিটি উৎসাহে, উৎসবে ও উদ্যমে।

সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা

Facebook Comments Box