বরিসের মৃত্যু ঘোষণার জন্য প্রস্তুত ছিল ডাক্তাররা

0
745

মরণব্যাধি কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের মৃত্যু ঘোষণার প্রস্তুতি ছিল চিকিৎসকদের।গত রোববার দ্য সানকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এই তথ্য জানিয়েছেন খোদ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।সম্প্রতি হাসপাতাল হতে কাজে যোগ দেয়া জনসন জানান, করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে আইসিইউতে যাওয়ার পর চিকিৎসকেরা তার বাঁচার আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন।

‘অস্বীকার করব না এটা কঠিন স্মৃতি। চিকিৎসকেরা আমার মৃত্যু ঘোষণা দেয়ার প্রস্তুতি নিয়েছিলেন’-বলেন জনসন।

আইসিইউতে থাকার দু:সহ স্মৃতির কথা স্মরণ করে জনসন জানান, নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে তাকে বাঁচিয়ে রাখতে চিকিৎসকরা ‘লিটার-লিটার’অক্সিজেন দেন। শ্বাসনালী দিয়ে টিউব প্রবেশ করানোর সময় বাঁচার সম্ভাবনা ফিফটি-ফিফটি চলে আসে বলেও জানান তিনি।

ব্রিটিশ এই প্রধানমন্ত্রী ২৭ মার্চ করোনা পজিটিভ হন। প্রথমে বাসায়ই চিকিৎসা নেন। এর ১০ দিন পর জ্বর, কাশিসহ উপসর্গগুলো না কমায় তাকে সেন্ট্রাল লন্ডনের সেন্ট থমাস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে বেশ কয়েকদিন থেকে বাড়ি ফিরতে সক্ষম হন তিনি।

হাসপাতাল থেকে মুক্তি পেয়ে গত বুধবার ছেলে সন্তানের মুখ দেখেন বরিস। জনসন ও তার বান্ধবী সিমন্ড জানিয়েছেন, চিকিৎসকদের উৎসর্গ করে ছেলের নাম রেখেছেন উইলফ্রেড ল্যারি নিকোলাস জনসন। নিকোলাস রেখেছেন ড. নিক প্রাইস এবং ড. নিক হার্টের নামানুসারে, যারা গত মাসে তার ‘জীবন রক্ষা করেছেন’। জনসন আরো জানান, ডাক্তাররা তাকে তাদেরসর্বোচ্চ সেবা দিয়েছেন।করোনা থেকে বাঁচায় নিজেকে সৌভাগ্যবান ভাবছেন জনসন।

Facebook Comments Box