ইংল্যান্ডে সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশি বংশদ্ভুত ৪ নারীর বাজিমাত

0
33

যুক্তরাজ্যে গতকাল বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচনে লেবার পার্টিসহ বিভিন্ন দলের মনোনয়নে ও স্বতন্ত্রভাবে ৩৪ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। তাঁদের মধ্যে চারজন জয়ী হয়েছেন। সবাই জিতেছেন লেবার পার্টির হয়ে।

রুশনারা আলী

রুশনারা আলী বেথনাল গ্রিন অ্যান্ড বো থেকে ৩৪ দশমিক ১ শতাংশ ভোট পেয়ে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। লেবার পার্টির সদস্য রুশনারা আলী ২০১০ সাল থেকে তার আসনে নির্বাচিত হয়ে আসছেন।

রুশনারা আলী পেয়েছেন ১৫ হাজার ৮৯৬ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী আজমল মাসরুর পেয়েছেন ১৪ হাজার ২০৭ ভোট।

রূপা হক

ইলিং সেন্ট্রাল ও অ্যাকটনের প্রতিনিধি রূপা হক পেয়েছেন ৪৬ দশমিক ৮ শতাংশ ভোট।

২০১৫ সালে প্রথমবারের মতো এমপি হিসেবে নির্বাচিত হন রূপা হক। তিনি কনজারভেটিভ প্রার্থী জেমস উইন্ডসর-ক্লাইভকে হারিয়ে ২২ হাজার ৩৪০ ভোট পেয়ে জিতেছিলেন।

লিবারেল ডেমোক্র্যাটদের পক্ষে দাঁড়ানো অ্যালিস্টার মিটন ৬ হাজার ৫৬ ভোট পেয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন।

টিউলিপ সিদ্দিক

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনি টিউলিপ রিজওয়ানা সিদ্দিক হ্যাম্পস্টেড এন্ড হাইগেট আসনে ৪৮ দশমিক ৩ শতাংশ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টিউলিপ সিদ্দিক হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড হাইগেট আসন থেকে ২৩ হাজার ৪৩২ ভোট পেয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ অ্যান্ড ইউনিয়নিস্ট পার্টির ডন উইলিয়ামস পেয়েছেন মাত্র ৮ হাজার ৪৬২ ভোট। তৃতীয় অবস্থানে রয়েছেন গ্রিন পার্টির লর্না জেন রাসেল। তিনি পেয়েছেন ৬ হাজার ৬৩০ ভোট।

সিদ্দিক ২০১৫ সাল থেকে সংসদ সদস্য।

আপসানা বেগম

আপসানা বেগম পপলার অ্যান্ড লাইমহাউজ আসনে ৪৩ দশমিক ১ শতাংশ ভোট পেয়ে পুনরায় নির্বাচিত হন। ২০১৯ সালে প্রথম সংসদ সদস্য হন আপসানা বেগম।

আপসানা বেগম পেয়েছেন ১৮ হাজার ৫৩৫ ভোট।

এবারের সাধারণ নির্বাচনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী ছিলেন ৩৪ জন।

এবারের যুক্তরাজ্যের নির্বাচনে রেকর্ড সংখ্যক প্রার্থী হাউস অব কমন্সের ৬৫০টি আসনের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন, ৪ হাজার ৫১৫ জন। যুক্তরাজ্যের চলমান নির্বাচনে মোট ৯৮টি রাজনৈতিক দল অংশ নেয়।

Facebook Comments Box