ইংল্যান্ডে করোনা ভাইরাসের নতুন এক ভ্যারিয়েন্টের সন্ধান

0
374
Strain_corona_Virus_Variant

ইংল্যান্ডে করোনা ভাইরাসের নতুন এক ভ্যারিয়েন্টের সন্ধান মিলেছে। যার ফলে ইংল্যান্ডে ভাইরাস সংক্রমণের হার দ্রুত হারে বেড়ে চলছে। ফলশ্রুতিতে ইংল্যান্ড সরকার জরুরি ভিত্তিতে লকডাউনে পরিবর্তন আনছে। ক্রিসমাস উপলক্ষে লকডাউন শিথিল করলেও নতুন ধরনের এই ভাইরাসের কারণে আবার কঠোর লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে ব্রিটিশ সরকার। লন্ডনসহ অনেক শহরে গতকাল থেকে এই লকডাউন কার্যকর হয়।

নতুন এই ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণের ফলে বিভিন্ন দেশ জরুরি ভিত্তিতে ইংল্যান্ডের সাথে ফ্লাইট স্থগিত রাখে। ইউরোপ ইংল্যান্ডের সাথে বর্ডার আপাতত বন্ধ রেখেছে, শুধুমাত্র জরুরি মালামাল আমদানি রপ্তানি ব্যতীত। আয়ারল্যান্ডও ৪৮ ঘণ্টার জন্য ইংল্যান্ডের সব ফ্লাইট বাতিল করে। ন্যাশনাল পাবলিক হেলথ ইমারজেন্সি টাইমর ডাঃ ডি গ্যাসকুন বলেন, ‘’নতুন ভ্যারিয়েন্ট এর ভাইরাস যে বর্তমান ভাইরাস থেকে বেশি ক্ষতিকর তার কোন প্রমাণ নেই, তারপরেও আমরা কোন চান্স নিতে চাই না’’। আয়ারল্যান্ড হেলথ অথরিটি কাছ থেকে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করতেছে। প্রয়োজন হলে ইংল্যান্ডের সাথে আরো ধীর্ঘ সময় ফ্লাইট বাতিল রাখতে পারে।

ওইদিকে অস্ট্রেলিয়াতে নতুন ধরনের ভাইরাসের দুইজন রোগী ধরা পড়েছে। দুইজনই ইংল্যান্ড থেকে ভ্রমণ করেছিল। তাদেরকে আপাতত কোয়ারেইন্টাইনে রাখা হয়েছে।

নতুন ধরনের এই ভাইরাস যেন মরার উপর খড়ার ঘা। নতুন ভ্যাকসিন আবিষ্কারে সবার মাঝে আশার সঞ্চার করলেও নতুন ধরনের ভাইরাসের জন্য আবিষ্কৃত ভ্যাকসিন কার্যকর নাও হতে পারে। নতুন ধরনের ভাইরাসের ক্ষতির মাত্রা কতটুকু বেশি বা কম তা সময়ের সাথেই বোঝা যাবে।

Facebook Comments Box