আয়ারল্যান্ড প্রবাসীর বাংলাদেশে নির্বাচনে সফলতা

0
226

এবারের নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের জয়জয়কার। তাদের মধ্যে একজন হলেন জনাব মোঃ ভাষানী খান। দীর্ঘ ৩০ বছর প্রবাসে থেকেও যে মানুষের মনে জায়গা করে নেয়া যায় তার জলজ্যান্ত উদাহরণ হচ্ছেন জনাব ভাষানী।

ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে জনাব মোঃ ভাষানী খান শরীয়তপুর সদর উপজেলার শৌলপাড়া ইউনিয়ন থেকে নির্বাচন করেন। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আনারস মার্কায় নির্বাচন করে তিনি জয়লাভ করেন। আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন না পেয়ে জনাব মোঃ ভাষানী খান আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করেন। বলা বাহুল্য তিনি দেশে এবং বিদেশে দীর্ঘদিন প্রত্যক্ষভাবে আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন।

জনাব মোঃ ভাষানী খান বলেন, ‘’এলাকায় আমার অবদান ও মানুষের প্রতি আমার ভালোবাসা এবং আমার প্রতি মানুষের ভালোবাসাই আমাকে এই জয় এনে দিয়েছে’’।

নির্বাচন পরবর্তী সময়ে তিনি শৌলপাড়া ইউনিয়নের উন্নয়নে অগ্রগণ্য ভূমিকা রাখতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। শৌলপাড়া ইউনিয়নকে মডেল ইউনিয়ন হিসেবে রূপান্তরিত করতে চান। উনার উল্লেখযোগ্য নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির মধ্যে ছিল; স্বাস্থ্য অবকাঠামোর উন্নয়ন, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা, জনগণের হয়ে নিজ অর্থায়নে হোল্ডিং ট্যাক্স প্রদান অন্যতম। এছাড়াও ব্যবসা বাণিজ্যের অগ্রগতি, ইউনিয়নের অবকাঠামগত উন্নয়ন ও দুর্নীতি দূরীকরণে কাজ করতে চান।

সহধর্মিণীর সাথে মোঃ ভাষানী খান

জনাব ভাষানী ৩ ছেলে ও ১ মেয়ের গর্বিত পিতা। তন্মদ্ধে বড় ও মেঝ ছেলে বর্তমানে আয়ারল্যান্ডে বসবাসরত, যাদের মধ্যে একজন সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার এবং ব্যবসায়ী এবং অন্যজন মাস্টার্সে অধ্যয়নরত। জনাব ভাষানী বর্তমানে সহধর্মিণী ও ১৩ বছর বয়সী তৃতীয় ছেলে এবং ৪ বছর বয়সী একমাত্র মেয়ে নিয়ে দেশেই রয়েছেন।

ধীর্ঘদিন আয়ারল্যান্ডে প্রবাস জীবন অতিবাহিত করেছেন। এখন দেশের মানুষকে নিজের সেবা বিলিয়ে দিতে নাড়ির টানে দেশে ফিরে গিয়েছেন। একজন প্রবাসীর দেশের মানুষের টানে দেশে ফিরে যাওয়া এবং দেশের মানুষের তাঁর প্রতি ভালোবাসা সত্যিই অসাধারণ।

শৌলপাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান মোঃ ভাষানী খান দেশে ও বিদেশে সর্বস্তরের মানুষের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছেন, যাতে করে যে উদ্দেশ্য নিয়ে চেয়ারম্যান হয়েছেন সে উদ্দেশ্য পূরণ করতে সক্ষম হন।

এলাকাবাসীর আনন্দ উদযাপন

Facebook Comments Box