আয়ারল্যান্ডে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন – নতুন দিগন্তের সূচনা

0
287

আয়ারল্যান্ডে প্রথমবারের মত জাকজমকপূর্ণভাবে উদযাপিত হল স্বাধীনতা দিবস। গত ২৬শে মার্চ লিমেরিক সিটি ও কাউন্টি কাউন্সিল হল প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হল স্বাধীনতা দিবস। 

২৬শে মার্চ সন্ধ্যা থেকে লিমেরিক সিটি ও কাউন্টি কাউন্সিল হলকে সজ্জিত করা হয় বাংলাদেশের পতাকা লাল সবুজের আলোকসজ্জায়। লিমেরিক সিটি ও কাউন্টি কাউন্সিলের পক্ষ থেকে আলোকসজ্জার ব্যবস্থা করা হয়। কাউন্সিলের প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় ও উদ্যেগে গৃহীত ওই আয়োজনকে সফল করতে ও সমর্থন জানাতে  কাউন্সিল হল প্রাঙ্গনে উপস্থিত হয় সমগ্র আয়ারল্যান্ডে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বাংলাদেশিগণ। 

লাল সবুজের রঙে ছেয়ে যায় লিমেরিক সিটি এবং কাউন্টি কাউনিল ভবন

আয়ারল্যান্ডে বসবাসরত বাংলাদেশিদের সরব উপস্থিতি লিমেরিক সিটি ও কাউন্টি কাউন্সিল হল প্রাঙ্গণকে পরিণত করে একখন্ড বাংলাদেশে। লাল সবুজে চেয়ে যায় শ্যানন নদীর উপকূল। বাংলাদেশি পুরুষ রমণীরা হাজির হয় লাল সবুজের সাজে ও দেশীয় সব পোশাকে। মুহূর্তের জন্য সবাই ভুলে ছিল যে তাঁরা প্রবাসের কোন মাটিতে রয়েছেন। 

লিমেরিক সিটি ও কাউন্টি কাউন্সিলর জনাব আজাদ তালুকদারের অনুরোধে কাউন্সিল এই মহিমান্বিত আলোকসজ্জার ব্যাবস্থা করতে রাজি হন। কাউন্সিলর জনাব আজাদ তালুকদার জানান, “এই আয়োজনের মাদ্ধমে নতুন দিগন্তের সূচনা হল। আগামী দিনগুলোতে এমন আয়োজন ছড়িয়ে পড়বে সমগ্র আয়ারল্যান্ডব্যাপী। আমাদের নতুন প্রজন্মও জানতে বুঝতে সক্ষম হবে দেশীয় ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি সম্পর্কে তিনি ধন্যবাদ জানান, অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলের প্রতি ও দূর দুরান্ত থেকে উপস্থিত ব্যাক্তিবর্গের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। 

দেশীয় পোশাকে বাংলাদেশীরা

অনুষ্ঠান সফল করার ব্যাপারে আরো সহায়তা করেন জনাব মনিরুল ইসলাম, যিনি সর্বদা দায়িত্বরতদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করেন। দূরের অতিথিদের জন্য খাবারের ব্যাবস্থা করে স্পনসর করেন লিমেরিকের বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী জনাব আনোয়ারুল হক। আলোকসজ্জার অনুষ্ঠানকে সফল ও প্রচার করতে সাহায্য করেআইরিশ বাংলা টাইমস“, তারা অনুষ্ঠানের দিন লাইভ সম্প্রচারের মাধ্যমে যুক্ত থাকে আয়ারল্যান্ডবাসীদের সাথে। 

স্বাধীনতা অনুষ্ঠান পরবর্তী অনুষ্ঠান সম্প্রচারে ভূমিকা রাখে সময় টিভি, বাংলা টিভি, আইরিশ নোটিশ বোর্ড, আইরিশ বাংলা পোস্ট, নিউজ ২৪, ডাবলিন ডাইরি ও আইরিশ বাংলা টাইমস। 

এছাড়াও আপামর বাংলাদেশিদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোগিতায় আয়ারল্যান্ডে প্রথমবারের মোট সরকারি উদ্যেগে গৃহীত স্বাধীনতা দিবসকে সাফল্যমন্ডিত করতে সক্ষম হয়েছে। 

আয়ারল্যান্ডের মাটিতে এমন অনুষ্ঠান বাংলাদেশিদের জন্য অত্যন্ত গর্বের বিষয়। বাঙ্গালি জাতি ও বাংলাদেশকে আয়ারল্যান্ডের মাটিতে তুলে ধরতে ও পরিচয় করিয়ে দিতে এমন অনুষ্ঠানের জুড়ি নেই। এমন অনুষ্ঠানের ফলে বাংলাদেশিদের অন্তত সুযোগ সৃষ্টি হয় দেশের গুরুত্বপূর্ণ দিবসগুলোকে স্রদ্ধাভরে স্মরণ করতে ও ভালোবাসা প্রদর্শন করতে। বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মও দেশের কৃষ্টি, সংস্কৃতি ও ইতিহাস সম্পর্কে জানার সুযোগ লাভ করে। শুধু লিমেরিক নয়, অদূর ভবিষ্যতে সমগ্র আয়ারল্যান্ডব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে ২১শে ফেব্রুয়ারি, স্বাধীনতা দিবস ও বিজয় দিবসের মত দিবসগুলি।

Facebook Comments Box