আয়ারল্যান্ডে বসবাসরত বৃহত্তর কুমিল্লাবাসীর আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী

0
1000

 

গত ১৪ই মে ২০২৩ রোজ রবিবার আয়ারল্যান্ডে বসবাসরত বৃহত্তর কুমিল্লাবাসীর আয়োজনে কাউন্টি গলওয়ের ট্যুম শহরের ওয়েস্ট উইং রেস্তোরায় ঈদ পুনর্মিলনীর আয়োজন করা হয়েছিল।

আয়ারল্যান্ডের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বিপুল সংখ্যক বাঙালি তাঁদের পরিবার নিয়ে ওয়েস্ট উইং রেস্তোরায় সমবেত হয়েছিলেন এবারের ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে। দুপুর গড়ার সাথে সাথে সকলে দূর দূরান্ত থেকে ঈদ মিলনীতে পৌঁছাতে শুরু করেন। ছোট বড়ো, নারী পুরুষ, সকলের অংশগ্রহণে ঈদ মিলনমেলা হয়ে উঠেছিল সমগ্র বাংলাদেশিদের সার্বজনীন মিলন একটি মেলা।

অনুষ্ঠান সার্বিক পরিচালনা করেন কবির আহমেদ ও আব্দুল মান্নান মান। পবিত্র কুরআনে পাক থেকে তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি শুরু হয় দুপুর একটায়। অনুষ্ঠানের শুরুতে কুমিল্লা এর উপর একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয় ও এর উপর কুইজ প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা করা হয়। এরপর বিশেষ অতিথিবৃন্দকে পরিচয় করে দেওয়া হয় এবং এর পর এক এক করে সকলে বক্তব্য প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে আইরিশ সরকারের ৪ জন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি সহ বাংলাদেশী কমিউনিটির অনেক প্রিয়মুখ শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। এদের মধ্যে জনাব ডাক্তার জিন্নুরাইন জায়গীরদার ও জনাব সৈয়দ মুস্তাফিজুর রহমান বক্তব্য রাখেন। সরকারের চার জন ব্যক্তি হচ্ছেন সিনেটর শন কীন (ফিনিগোইল সদস্য) তিনি সংসদের সংস্কৃতি ও শিক্ষা বিষয়ক প্যানেলের সদস্য। দ্বিতীয়জন ফাইন গেইলের ডেপুটি নেতা সংসদ সদস্য কিরণ ক্যানন। তিনি মিডিয়া, আর্ট ও কালচারাল মুখপাত্র। কাউন্টি গলওয়ের কাউন্সিলর, মেয়র মিকাইল মোগি মাহির। অপর জন কাউন্টি ডাবলিনের ডানলহরী, রাথডাউন এলাকার কাউন্সিলর বাংলাদেশের গর্ব জনাব কাজী মোস্তাক আহমেদ ইমন।

এই সমস্ত অতিথিবৃন্দ বাংলাদেশিদের নানা ভাবে সহযোগিতা করার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেছেন। আয়ারল্যান্ডে বাংলাদেশী এমব্যাসি স্থাপনের ব্যাপারে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। অতিথিদের সাথে আলাপের এক কালে গলওয়ের ৫টি কবরস্থানে নির্দিষ্ট করে ১৫টি করে কবরের স্থান মুসলমানদের জন্য বরাদ্ধ রাখার ব্যাপারে তাদের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিবেন বলেছেন। ধীরে ধীরে সারা আয়ারল্যান্ডের বিভিন্ন কাউন্টিতে অনুরূপ সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।

ঈদ পুনর্মিলনীতে গলওয়ের স্থানীয় অনেক বাংলাদেশী উপস্থিত হন। এদের মধ্যে জসিম দেওয়ান, আজিমুল হোসেন আজিম, জহির উদ্দিন, লিটন খান, জামাল বাশির, বেলাল হোসেন, তামিম মজুমদার প্রমুখ।

এছাড়া সমগ্র আয়ারল্যান্ড থেকে নেতৃস্থানীয় পর্যায়ের লোকজনও চোখে পড়ার মতো ছিল। যাদের মধ্যে ডাক্তার মুসাব্বির হোসাইন, ডাক্তার সালেহীন, ডাক্তার শামীম, সাইফুল ইসলাম, মিজানুর রহমান জাকির, আশিকুর রহমান আরিফ, জালাল আহমেদ ভূঁইয়া, জাকারিয়া প্রধাণ, আরিফ ভূঁইয়া, ইকবাল মাহমুদ, আনোয়ারুল হোক আনোয়ার, সাজেদুল চৌধুরী রুবেল, আজিজুর রহমান মাসুদ, মুজিবুর রহমান রহমান, আয়ুব আলী, আব্দুর আলমগীর, রনি, রিজভী, টুলু মিয়া, লোকমান হোসেন, মাকসুদ, গালিব হক, আবুল কাশেম, আলাউদ্দিন, মোজাম্মেল হক, তারেক ইকবাল, রবিউল আলম, শম্পা লিলি, রোকসানা ও অনেকে। আগত অতিথিবৃন্দরা অনুষ্ঠানে নেচে গেয়ে অনুষ্ঠানটিকে সারাক্ষন মাতিয়ে রেখেছিলেন।

অনুষ্ঠানে আগত অতিথিদেরকে আপ্যায়নের জন্য বুফেট সার্ভিসের মাধ্যমে খাবারের আয়োজন এবং সাথে মিষ্টি হিসেবে কুমিল্লার রসমালাইয়ের ব্যবস্থা রাখা হয়েছিল।

অনুষ্ঠান সূচিতে বাচ্চাদের জন্য ও বড়োদের জন্য নানা রকম আয়োজনের ব্যবস্থা রাখা ছিল। শিশু কিশোরদের জন্য আয়োজন করা হয়েছিল কুরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতা, বাচ্চাদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, বয়স্ক নারী, পুরুষদের চিত্ত বিনোদনের জন্য ছিল যথাক্রমে বালিশ খেলা ও বল খেলা।

কুমিল্লা ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের প্রধান উপদেষ্টা জনাব আক্তার হোসেন উক্ত ঈদ পুনর্মিলনীতে আসা সকলকে আন্তরিক ধ্যন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং এই অনুষ্ঠান সফল করতে যারা আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করেন ও ভ্যানু দিয়ে সহযোগিতা করেন তাদের সকলকেও তিনি ধ্যন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

কুমিল্লা কমিউনিটির উপদেষ্টা কমিটির ১৫ জন সদস্য জনাব আক্তার হোসেন, জনাব আব্দুল মান্নান, জনাব মনিরুল ইসলাম, জনাব আব্দুল মান্নান মান, জনাব আনোয়ারুল আজিম, জনাব সাইফুজ্জামান খান, জনাব ইনজামামুল হক জুয়েল, জনাব মুজিবুল হক, জনাব সালাহ উদ্দিন, জনাব মশিউর রহমান, জনাব শফিকুর রহমান গিয়াস, জনাব লোকমান হোসেন, জনাব মাসুদ আলম, জনাব আলাউদ্দিন, জনাব সোহরাব হোসেন।

এই ঈদ পুনর্মিলনী এই অনুষ্ঠানটি আয়োজন করতে পেরে আয়োজক বৃন্দ অত্যন্ত আনন্দিত হয়েছেন। ঈদ আনন্দ উপভোগের মাধ্যমে বৃহত্তর কুমিল্লার ভাই-বোনদের সাথে অন্যান্য জেলার মানুষের সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে বলে তারা প্রত্যাশা করেছেন

Facebook Comments Box