আয়ারল্যান্ডে আসছে নতুন জোট সরকার

0
265

আয়ারল্যান্ডে আসছে নতুন জোট সরকার


আয়ারল্যান্ডের বর্তমান হয়তো আর থাকছে না, তার বদলে Fine Gael, Fianna Fáil এবং the GreenPartyর সমন্বয়ে নতুন একটি জোট সরকারই পেতে যাচ্ছে আয়ারল্যান্ড। এ নিয়ে আলোচনার লক্ষ্যে তিন দলের নেতাদের একসঙ্গে বসার কথা রয়েছে।
ডাবলিন ক্যাসলে মন্ত্রীসভার বৈঠক শেষে জানানো হয়, আশা করা হচ্ছে, Fine Gael, Fianna Fáil এবং the Green Party সরকারি জোটে যোগ দেয়ার পক্ষে সিদ্ধান্ত নেবে। আর তাই তাদের প্রাধান্য দিয়ে সরকারের বিভিন্ন বিভাগের কাঠামোয় রদবদল আনার কথা ভাবা হচ্ছে।


তিন দল সরকারে যোগদানের সিদ্ধান্ত নিলে মন্ত্রীসভার ওই বৈঠকই বর্তমান সরকারের শেষ বড় গ্যাদারিং।
মন্ত্রীসভার বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রী MrVaradkar বলেন, গত তিন বছর আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী থাকতে পারাটাই আমার জীবনের সবচাইতে বড় সম্মান। সারাজীবন রাজনীতিতে যা শিখেছি, গত তিন মাসের দুর্যোগে তার চাইতে অনেক বেশিকিছু শিখেছি। প্রার্থনা করি, আমাদের দেশে এমন দুর্যোগ যেন কখনও আর না-আসে।


তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে হয়তো এটাই আমার শেষ সংবাদ সম্মেলন। যদি তা-ই হয়, তাহলে আমি সেসব মানুষকে ধন্যবাদ জানাতে চাই, যারা করোনা দুর্যোগ মোকাবিলায় আমাদের দিকনির্দেশনা দিয়েছেন এবং আমাদের দেশকে রক্ষা করেছেন।
MrVaradkar বলেন, আমি বিশ্বাস করি, চীফ মেডিক্যাল অফিসার ডা টনি হোলোহানের কাছে এ দেশ চিরঋণী হয়ে থাকবে। করোনা দুর্যোগকালে তিনি হয়ে উঠেছিলেন দেশের সবচাইতে আস্থাভাজন ব্যক্তিত্ব এবং তাঁর কারণে আমরা নিজেদের নিরাপদ ভাবতে পারছিলাম।


এদিকে আগামী সরকারের বিভিন্ন বিভাগের কাঠামোয় এবং মন্ত্রীদের দায়িত্বে বেশ কিছু পরিবর্তন আসছে। পরিকল্পিত পরিবর্তনের মধ্যে রয়েছে, Defence ও the Gaeltacht বিভাগের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিভাগগুলোর দায়িত্ব সিনিয়র মন্ত্রীদের হাতে ন্যস্ত করার বিষয়টিও রয়েছে।
এছাড়া শিশু বিভাগটি থাকলেও এর ওপর আরও কিছু দায়িত্ব দেয়া হবে। পরিকল্পনা রয়েছে মেরিন বিভাগকে কৃষি বিভাগের সাথে সমন্বিত করার।


নতুন সরকারে চীফ হুইপসহ দু’জন সুপার জুনিয়র মন্ত্রী রাখা হবে। তারা সবাই ক্যাবিনেট মিটিঙয়ে যোগ দিতে পারবেন।
জুনিয়র মন্ত্রীর সংখ্যা ২০ জনের মতো হতে পারে বলে খবর প্রকাশিত হলেও এ বিষয়ে আসলে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। শনিবার অথবা তার পরের যে কোনো দিন তাদের নাম ঘোষণা হতে পারে।


MrVaradkar জানান, আয়ারল্যান্ড ও অন্যান্য দেশের মাঝে বিদ্যমান কিছু ভ্রমণ কড়াকড়ি আগামী ৯ জুলাই থেকে শিথিল করা হবে।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাইমন হ্যারিস জানান, গণপরিবহনে মাস্ক পরিধান করা বাধ্যতামূলক করা হবে।

সৈয়দ আতিকুর রব
ডাবলিন

Facebook Comments Box