আমাদের নিরন্তর পথ চলা প্রত্যাশা

0
142

আমাদের নিরন্তর পথ চলা প্রত্যাশা

আমাদের লক্ষ্য হওয়া চাই শুভকর্মের মধ্য দিয়ে মানুষের অন্তরে বেঁচে থাকা। একমাএ শুভকর্মের মৃত্যু নেই। একটা একটা করে দিন আসছে, রাত্রি ফুরোচ্ছে। স্পষ্টতই পৃথিবী তার আপন কক্ষপথে বাধাহীন আবর্তে আছে। আমরা মানুষেরাও ছুটছি। যে ভাবে পারছি গতিতে আছি। হোঁচট খেয়ে মুখ থুবড়ে পড়লে কেউ উঠে দাঁড়িয়ে সামনে এগোই, কেউ পিছিয়ে যাই। কিন্তু স্থবির থাকি না কেউ। বলার মতো কিছু না করলেও দু এক বেলা খেয়ে পড়ে বয়স বাড়াই, মৃত্যুর দিকে এগোই। গতকালের গততে কেউ আটকে নেই। থাকার মধ্যে গতদিনের স্মৃতির আনন্দ বা কষ্ট গুলো সঙ্গে থাকে। মানুষের মস্তিস্ক উন্নততর। আমরা বিগতদিনের ঘটনা উপেক্ষা করতে পারি, অস্বীকার করতে পারি, কিন্তু ঘটনার স্মৃতি ভুলতে পারি না। এগুলোর তাড়না কখনো আমাদের মনকে ভাল রাখে, কখনো বিষন্ন রাখে, কখনো চলার প্রেরণা যোগায় আবার কখনো কোন অনুভূতিরই উদ্রেক করে না। যা কিছুই হোক জীবন থেমে থাকে না। জন্মের পর থেকে যাদেরকে দেখে দেখে আমরা বড় হই তাঁরা চোখের সামনে বৃদ্ধ হয়ে পৃথিবী ছেড়ে চলে যান। কেউ কেউ বৃদ্ধ হবারও সুযোগ পান না। যারা চলে যায়, তাদের চলা থেমে যায়। আমরা স্বজন হারাই। ব্যথিত হই। এই ব্যথা অনিবার্য,চিরন্তন। বেঁচে থাকার কোন এক পর্যায়ে সবাইকেই এই বিয়োগ অনুভূতির মুখোমুখি হতে হয়। একদিন পৃথিবীর পরে থাকবোনা বলেই আমরা আমাদের সন্তানদের পৃথিবীতে আনি। তাদের কাছে পৃথিবী রেখে যাই। প্রকৃতির প্রতি দায়বদ্ধতা ঘোঁচে।

মৃত্যু আছে বলে গতি চিরন্তন নয়, সব গতির শেষ আছে। যদি কর্মের মধ্য দিয়ে মৃত্যুর পরে বেঁচে থাকা না যায়, তবে সে জীবন প্রাণীর জীবন, মানবজীবন নয়

Facebook Comments Box